সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১০:২৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
‘হাবিবি’ নিয়ে আসছেন নুসরাত ফারিয়া “এসো নিজেকে নিজে চিনি” পরিবার আয়োজিত বাউল গানের প্রতিযোগিতার গ্রান্ড ফিনালে ২০ অক্টোবর শুধুমাত্র অনুদানের সিনেমা দিয়েই মুখর সিনেপাড়া বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশ ও স্কটল্যান্ডের সম্ভাব্য একাদশ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ দেখা যাবে যেসব চ্যানেলে ‘বাংলাদেশকে আমরা পাপুয়া নিউগিনির চেয়ে ওপরে দেখি না’: স্কটল্যান্ড কোচ শেন বার্জার টি ২০ বিশ্বকাপ ওমান ও সংযুক্ত আরব আমিরাতে আজ শুরু ইভ্যালির ওয়েবসাইট-অ্যাপ বন্ধের ঘোষণা কুমিল্লার ঘটনার পেছনের কারণ খোঁজা হচ্ছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল ‘দেশ বিক্রি করে তো আমি ক্ষমতায় আসব না’ এটাই বাস্তব

হিলি স্থলবন্দর দিয়ে বেড়েছে পেঁয়াজের আমদানি, কমেছে দাম

জ.নি. রিপোর্টঃ
  • প্রকাশ সময়ঃ মঙ্গলবার, ৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৩৮ বার পড়া হয়েছে

দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ভারত থেকে বেড়েছে পেঁয়াজের আমদানি। আমদানি বাড়ায় বন্দরের পাইকারী ও খুচরা বাজারে কমেছে আমদানিকৃত পেঁয়াজের দাম। দুই দিনের ব্যবধানে কেজিতে কমেছে ২ থেকে ৪ টাকা। আমদানি বাড়ার সাথে সাথে দাম কমেতে শুরু করেছে বলে জানালো ব্যবসায়ী আলমগীর।

এদিকে বন্দরে পেঁয়াজের দাম কমায় বিভিন্ন এলাকা থেকে পাইকাররা এসে ভিড় করছেন। পেঁয়াজ কাঁচা পণ্য হওয়ায় বন্দর থেকে দ্রুত ছাড়করণ করতে সবধরনের সহযোগিতা দিয়ে যাচ্ছে বলে জানায় বেসরকারি অপরাটের হিলি পানামা লিংক লিমিটেড কর্তৃপক্ষ। হিলি পানামা পোর্টের জনসংযোগ কর্মকর্তা সোহরাব হোসেন মল্লিক প্রতাব বলেন, এই বন্দরের আমদানিকৃত সকল পণ্য দ্রুত ছাড়করণে আমরা ব্যবসায়ীদের সবধরনের সহযোগিতা দিয়ে যাচ্ছি। তবে পেঁয়াজ যেহেতু কাঁচা পণ্য, কাজেই তা দ্রুত ছাড়করণ করে দেশের বাজারে ব্যবসায়ী সরবরাহ করতে পারে সে লক্ষ্যে তাদের সার্বিক সহযোগিতা দেওয়া হচ্ছে।

হিলি স্থলবন্দর অভ্যন্তরে ও খুচরা বাজার ঘুরে জানা যায় ,বন্দর অভ্যন্তরে ভারত থেকে সারি সারি প্রবেশ করছে পেঁয়াজবোঝাই ট্রাক। পেঁয়াজ ক্রয়ের জন্য ভিড় জমাচ্ছেন পাইকাররা। অন্যদিকে আমদানি বেশির কারনে খুচরা বাজারে প্রকারভেদে পেঁয়াজের দাম কেজিতে দুই থেকে চার টাকা করে কমেছে। এতে কিছুটা স্বস্তি ফিরেছে সাধারণ ক্রেতার মাঝেও। চলতি সপ্তাহের গেলো শনিবার বাজারে পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে ৩০ থেকে ৩২ টাকা কেজি দরে। সেই পেঁয়াজ মঙ্গলবার বিক্রি হচ্ছে ২৮ টাকা কেজি দরে।

দাম কমার কারণ হিসেবে হিলি স্থলবন্দরের আমদানিকারক বাবু জানান, দেশের বাজারে চাহিদা থাকায় এই বন্দর দিয়ে পেঁয়াজের আমদানিটা বেড়েছে। আমদানি বাড়ার কারণে স্থানীয় বাজারে পণ্যটির সরবরাহ বেড়ে যাওয়ায় দাম কমেছে। কাঁচা পণ্যের নিয়মই এটি, আমদানি বাড়লে দামও কমে। আমদানি বাড়লে বাজারে পণ্যটির দাম আরো কমে আসবে।

এদিকে হিলি বাজারের খুচরা বিক্রেতা শরিফ জানান, বন্দর দিয়ে পেঁয়াজের আমদানি বেড়েছে। যার কারণে আমরা সেখান থেকে কম দামে পেঁয়াজ কিনতে পারছি এবং কম দামে বিক্রি করছি। আমরা কম দামে কিনতে পারলে কম দামেই বিক্রি করে থাকি। দাম বাড়ানো সুযোগ আমাদের হাতে থাকে না। কথা হয় হিলি বাজারের রহমত ও রাজিব নামের দুজন সাধারণ ক্রেতার সঙ্গে। তারা বলেন, আজকে আমরা হিলি বাজারে পেঁয়াজ কিনতে আসলাম। আজ একটু পেঁয়াজের দামটি কাম। এরকম দাম কম হলে আমাদের জন্য একটু ভালো হয়।

হিলি কাস্টমসের তথ্যমতে, চলতি সপ্তাহের প্রথম দিন শনিবার ভারত থেকে মাত্র ৬টি পেঁয়াজবোঝাই ট্রাক বন্দরে প্রবেশ করলেও রবি ও সোমবার ভারত থেকে ৬০টি পেঁয়াজবোঝাই ট্রাকে ১ হাজার ৭শ ৪৬ মেট্টিকটন পেঁয়াজ আমদানি হয়েছে এই বন্দর দিয়ে।

দয়া করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর
© All rights reserved © 2021 Janatarnissash
Theme Dwonload From