শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ০৯:২৯ অপরাহ্ন

পশ্চিমবঙ্গের শিল্পমন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় ও মডেল অর্পিতা মুখোপাধ্যায় গ্রেফতার

জ.নি. আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ
  • প্রকাশ সময়ঃ রবিবার, ২৪ জুলাই, ২০২২
  • ১৫৬ বার পড়া হয়েছে

শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় প্রায় ২৭ ঘণ্টা নাকতলার বাড়িতে তল্লাশির পর পশ্চিমবঙ্গের সাবেক শিক্ষামন্ত্রী ও বর্তমান শিল্পমন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে গ্রেফতার করল ইডি। পশ্চিমবঙ্গে প্রায় ১১ বছর সরকার চালানো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মন্ত্রিসভায় পার্থবাবু ‘নম্বরটু’ হিসাবে পরিচিত এবং তৃণমূল কংগ্রেসেরও মহাসচিব তিনি। আদালতের নির্দেশে দু’দিনের জন্য ইডি হেফাজত হলেও অসুস্থ হওয়ায় সাবেক শিক্ষামন্ত্রীকে রাতে কলকাতার পিজি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। পার্থ ছাড়াও গ্রেফতার হয়েছেন তার ঘনিষ্ঠ বান্ধবী অর্পিতা মুখোপাধ্যায় এবং আটক হয়েছেন একান্ত সচিব সুকান্ত আচার্য। বান্ধবী অর্পিতার ফ্ল্যাট থেকে ২১ কোটি ২০ লাখ টাকা উদ্ধার করা হয়েছে।

আর্থিক দুর্নীতি মামলা শুক্রবারই নাটকীয় মোড় নেয় পার্থের বাড়িসহ ১৪ জায়গায় ইডি ও আয়করের তল্লাশিতে। সাবেক শিক্ষামন্ত্রীর ‘ঘনিষ্ঠ’ মডেল অভিনেত্রী অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের হরিদেবপুরের অভিজাত আবাসনের ফ্ল্যাট থেকে ২১ কোটি ২০ লাখ টাকা উদ্ধার হয় বলে ইডি দাবি করে। ৫০০ ও ২০০০ টাকার নোটগুলো এনভেলপে করে আলাদাভাবে জড়ানো ছিল। সেই বিপুল টাকা উদ্ধারের সূত্রেই শুক্রবার রাত দুটো নাগাদ পার্থকে গ্রেফতারির খবর জানানো হয়। আর এদিন দুপুরে গ্রেফতার করা হয় অর্পিতাকে। রোববার তাকেও আদালতে তোলা হবে। ইডি সূত্রে দাবি করা হয়, ৫৪ লাখ টাকার বৈদেশিক মুদ্রার পাশাপাশি ৮৫ লাখ টাকার সোনার গয়নাও উদ্ধার হয়েছে। পার্থের বাড়ি থেকে অর্পিতার নামে ফ্ল্যাটসহ সাতটি সম্পত্তির দলিল ও একাধিক পেন ড্রাইভ উদ্ধার হয়। সেই দলিলের সূত্র ধরেই টালিগঞ্জের হরিদেবপুরে অভিজাত আবাসনে হানা দেয় ইডি। ইডি সূত্রে দাবি করা হয়েছে, পার্থ ঘনিষ্ঠ অর্পিতার বাড়িতে কিছু নথি পাওয়া গেছে যা থেকে বেআইনি আয়ের সূত্র মিলেছে। স্কুল সার্ভিস কমিশনের খামেও টাকা মিলেছে বলে তদন্তকারী সংস্থার দাবি। রিজার্ভ ব্যাংকের প্রায় ৪০টি ট্রাঙ্কে করে টাকা গোনার পর্ব শেষে ট্রাকে করে নিয়ে যাওয়া হয় টাকা। ‘সিজার লিস্ট’ পর্ব সম্পন্ন করতে দেরি হয়। ফলে সন্ধ্যা ৬টা নাগাদ অর্পিতাকে তার ফ্ল্যাট থেকে বের করে ইডি। গোটা আবাসন চত্বর ঘিরে রেখেছিল কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানরা। বিধানসভার স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘পার্থবাবু আমাদের বিধানসভার সদস্য। শুনেছি তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তবে এ প্রসঙ্গে আইনত বিধানসভাকে জানানো উচিত।’

এদিন পার্থ চট্টোপাধ্যায় অসুস্থ বোধ করায় তাকে আদালতে পেশ করা হলেও এজলাসে তোলা হয়নি। তার আইনজীবীরা বলেন, ইতোমধ্যেই পার্থবাবু দু’বার সিবিআইয়ের কাছে হাজিরা দিয়েছেন। হাই কোর্ট সিবিআইকে জেরার অনুমতি দিলেও কাউকে গ্রেফতার করার কথা বলেনি। রঞ্জন নামে এক ব্যক্তি নাকি টাকা উপর মহলে দিত বলে অভিযোগ। তাহলে পার্থবাবুর বাড়িতে টাকা পাওয়া গেল না কেন? শুধু কিছু জেরক্স কাগজ উদ্ধার হয়েছে। ইডি মামলা শুরু করলেও একবারও সমন করেনি। ৭০ বছরের পার্থবাবু শারীরিকভাবে অসুস্থ ও কোথাও পালাতে পারবেন না। তাই তার জামিনের আবেদন করেন আইনজীবী। এদিকে, ইডির আইনজীবী আবেদনে বলেন, সিবিআইয়ের তদন্তের সঙ্গে ইডির মিল নেই। অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে পার্থবাবুর সঙ্গে তার যোগাযোগের প্রমাণ মিলেছে। অর্পিতার ফ্ল্যাটে টাকা সরানো হয়েছে। কীভাবে অর্পিতার সম্পত্তি কেনা হলো, কীভাবে ওই বিপুল টাকা অর্পিতার হাতে এলো, বাকি টাকার হদিস পেতে অভিযুক্তকে নিজেদের হেফাজতে নেওয়া প্রয়োজন।

কোন কোন জায়গায় সম্পত্তি কেনা হয়েছে ও টাকা সরানো হয়েছে, তা জানার প্রয়োজন। সাধারণ মানুষের টাকা আত্মসাৎ করা হয়েছে। দু’লাখ টাকার ওপর নগদ উদ্ধার হলেই আয়কর দপ্তর তদন্ত করে। এখানে টাকার পরিমাণ অনেক বেশি। পার্থের বাড়িতে টাকা না উদ্ধার হলেও বেনামে বহু সম্পত্তি রয়েছে বলে আদালতে আবেদনে দাবি ইডির।

একে একে রাঘব বোয়াল সামনে আসবে: শ্রীলেখা মিত্র

২১ কোটি টাকা উদ্ধার করা হয়েছে পশ্চিমবঙ্গের শিল্পমন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের ঘনিষ্ঠ অভিনেত্রী ও মডেল অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের বাড়ি থেকে। শিল্পমন্ত্রী পার্থ ও অর্পিতা দুজনই গ্রেফতার হয়েছেন। এ নিয়ে এক প্রতিক্রিয়ায় টলিউডের অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র বলেছেন, “একে একে সব রাঘব বোয়াল সামনে আসবে। কথায় আাছে না, কান টানলে মাথা আসে। এবার বড় বড় মাথারা ধরা পড়বে।” পুরোনো কেসগুলোও দেখার আহ্বান জানিয়েছেন শ্রীলেখা মিত্র।

চলচ্চিত্রে কম কাজ করা প্রসঙ্গে শ্রীলেখা বলেন,“পুরো চলচ্চিত্র জগৎই এখন রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বদের দ্বারা পরিচালিত। আমাকে ২১ জুলাই মঞ্চে দেখা যায় না। আমি মিছিলে হাঁটি না। একটি অন্য কোনও দলের সমর্থক বলে তিন মাস কোনও কাজের সুযোগ আসেনি। ধারাবাহিকের জন্য বলেছিলেন এক জন, কিন্তু আমি এখন মেগাতে কাজ করব না।” ন্যায়বিচার করা হোক, এখন আপাতত সেটাই দাবি অভিনেত্রীর।

উল্লেখ্য, পশ্চিমবঙ্গে শিক্ষক নিয়োগ (এসএসসি স্ক্যাম) দুর্নীতি মামলায় গ্রেফতার হয়েছেন রাজ্যের সাবেক শিক্ষামন্ত্রী ও বর্তমান শিল্পমন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। শুক্রবার সকাল থেকে টানা ম্যারাথন জিজ্ঞাসাবাদের পর বেহালা পশ্চিম বিধানসভা কেন্দ্রের তৃণমূল কংগ্রেস বিধায়ককে গ্রেফতার করে ভারতের কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট’র (ইডি) কর্মকর্তারা।

শ্রীলেখা মিত্র

পার্থ চট্টোপাধ্যায় রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী থাকাকালীন ২০১৭ সাল থেকে শিক্ষক নিয়োগে বেনিয়মের অভিযোগ ওঠে। অর্থের বিনিময় অনেককে চাকরি পাইয়ে দেবার অভিযোগ ওঠে সেসময়। ফলে মেরিট লিস্টে নাম না থাকা সত্ত্বেও কেবলমাত্র রুপির জোরে অনেকেই চাকরি পেয়ে যান।

ওই অভিযোগ আসার পরেই কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশে তদন্তের ভার হাতে নেয় কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা সিবিআই। তারা মূলত এই মামলার ফৌজদারির দিকটি দেখছে। কাদের হাত ধরে এই দুর্নীতি হয়েছে তা খোঁজার চেষ্টা চালাচ্ছে সিবিআই-এর তদন্তকারী কর্মকর্তারা। অন্যদিকে এই মামলায় আর্থিক দুর্নীতির দিকটি খতিয়ে দেখছে ইডির কর্মকর্তারা। তারই অংশ হিসেবে শুক্রবার রাজ্যের অন্তত ১৪টি জায়গায় তল্লাশি অভিযান চালায় ইডি।

দয়া করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরো খবর
© All rights reserved © 2022 Janatarnissash
Theme Dwonload From