শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৩:১৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
একরাশ শুভেচ্ছা, শ্রদ্ধা এবং ভালোবাসা ঝন্টু ভাইয়ের জন্মদিনে: মুজতবা সউদ সরকারী অর্থায়নে চলচ্চিত্র প্রযোজনা করতে যাচ্ছে এফডিসি ভুল চিকিৎসায় রোগীর রক্তনালী কেটে ফেললেন ডা. সামসুল আরেফিন প্রিন্সেস ডায়ানার ফোর্ড এসকর্ট আরএস বিক্রি হলো সাড়ে ৬ লাখ ডলারে এশিয়া কাপের উদ্বোধনী ম্যাচে শ্রীলঙ্কাকে উড়িয়ে আফগানদের শুভসূচনা অবশেষে মুখ খুললেন শ্রীধরন শ্রীরাম এই সরকারের অধীনে নির্বাচনে গেলে আপনারা জাতীয় বেঈমান হবেন : নুরুল হক নুর রোশান-মাহির ‘আশীর্বাদ’ মাত্র ৮ হলে মুক্তি পেলো ! ৯ সেপ্টেম্বর শুভমুক্তি “ও মাই লাভ” ওয়ার্নারের কাছে ‘পরিবারই সব’, পগবার চোখে তাঁর মা ‘দ্য বস লেডি’

মানুষের ক্রয়ক্ষমতা বেড়েছে: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

হাসান মাহমুদ
  • প্রকাশ সময়ঃ সোমবার, ১৭ জানুয়ারী, ২০২২
  • ১১৮ বার পড়া হয়েছে

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সরকারের গৃহীত পদক্ষেপের ফলে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে।  মানুষের মাথাপিছু আয় এবং ক্রয়ক্ষমতা বেড়েছে।

তিনি বলেন, মানুষ এখন অনেক সচ্ছল হওয়ার সুযোগ পাচ্ছে।  কিন্তু আমরা চাই আমাদের আরও অনেক দূর যেতে হবে, জাতির পিতা এ দেশকে নিয়ে এ দেশের মানুষকে নিয়ে যে স্বপ্ন দেখেছিলেন— ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত বাংলাদেশ গড়বেন, আমাদের লক্ষ্য আমরা সেটিই গড়তে চাই।

প্রধানমন্ত্রী ২০০৮ সালে নির্বাচনের আগে আওয়ামী লীগের দেওয়া নির্বাচনি ইশতেহারের কথা উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, তার সরকার নির্বাচনি ইশতেহার অনুযায়ী সব উন্নয়ন এজেন্ডা বাস্তবায়ন করেছে। আজকের বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশ ও আমাদের আরও এগিয়ে যেতে হবে, এ লক্ষ্যে আমরা পরিকল্পনা নিয়েছি।

তিনি আরও বলেন, ৮ম পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনা আমরা বাস্তবায়ন শুরু করেছি। ২০১০ থেকে ২০২০ প্রেক্ষিত পরিকল্পনা বাস্তবায়নের মাধ্যমে উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে জাতিসংঘের স্বীকৃতি অর্জন করেছি। আজকে আমাদের লক্ষ্য হচ্ছে ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে উন্নত-সমৃদ্ধ দেশ হিসেবে গড়ে তোলা। সে জন্য ২০২১ থেকে ২০৪১ প্রেক্ষিত পরিকল্পনা প্রণয়ন করেছি সেটাও বাস্তবায়ন হবে ইনশাল্লাহ এবং বাংলাদেশের এই অগ্রযাত্রা আর কেউ ভবিষ্যতে থামাতে পারবে না।

আওয়ামী লীগ সরকারে এসে রংপুর অঞ্চলের মঙ্গা দূর করেছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ২০১০ সালে আমরা রংপুর বিভাগ করে দিই। এখন উদ্বৃত্ত খাদ্যের অঞ্চল হয়ে গেছে এই রংপুর। একসময় খাবারের অভাবে মানুষ মারা গেছে, মানুষ দেখলে মনে হতো জীবন্ত কঙ্কাল হেঁটে বেড়াচ্ছে। এ অবস্থা আমার নিজের চোখে দেখা। আল্লাহর রহমতে এখন আর সেই অবস্থা নেই। দুর্ভিক্ষ তো দূর হয়েছেই, বরং খাদ্য ও উদ্বৃত্ত থাকছে।

দয়া করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরো খবর
© All rights reserved © 2022 Janatarnissash
Theme Dwonload From