মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:৩৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
‘ছাইচাপা আগুন’ পেয়ে গেছে টিম আর্জেন্টিনা জনগণ সরকারকে লাল কার্ড দেখিয়ে দিয়েছে : বেগম সেলিমা রহমান পুলিশের ‘হয়রানি’ অভিযান বন্ধ করুন: আমান উল্লাহ আমান ৪৮ দলের ২০২৬ বিশ্বকাপ কেমন হবে? তামিম ইনজুরিতে, ভারতের বিপক্ষে ওয়ানডে অধিনায়ক লিটন দাস প্রথম দিন ৭৫ ওভারে ৫০৬ রান, নতুন বিশ্ব রেকর্ড পাকিস্তানের বিপক্ষে ইংল্যান্ডের নুহাশ হুমায়ুন এর সিনেমায় যুক্ত হলেন দুই অস্কারজয়ী ড. মাহফুজুর রহমান এর পরিকল্পনায় মজুমদার ফিল্মস এর ‘ভালোবাসি তোমায়’ ১ম লটের স্যুটিং শেষ হয়েছে মেসি একা নন, এবার তরুণরাও আর্জেন্টিনার ভরসা বিদ্যুৎ ব্যবহারে সবাইকে সাশ্রয়ী হওয়ার প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান

বিএফডিসিতে মাছ নামিয়ে আবারো সাগরে ফিরছেন জেলেরা

কাউসার আলম
  • প্রকাশ সময়ঃ সোমবার, ২৫ জুলাই, ২০২২
  • ১৬৯ বার পড়া হয়েছে

সাগর থেকে ট্রলারে ইলিশ বোঝাই করে পাথরঘাটার মৎস্য অবতরণ কেন্দ্রের ঘাটে ফিরতে শুরু করেছেন বরগুনা উপকূলের জেলেরা। ঘাটে ফিরেই দ্রুত ট্রলার মালিক বা আড়তদারদের মাছ বুঝিয়ে দিয়ে আবারো তারা ফিরে যাচ্ছেন গভীর সমুদ্রে।

জেলেরা বলছেন, যে পরিমাণ মাছ আশা করেছিলেন তার চেয়েও বেশি মাছ আটকা পড়েছে তাদের জালে।

সোমবার সকালে দেশের দ্বিতীয় সর্ববৃহৎ মৎস্য অবতরণ কেন্দ্র (বিএফডিসি) পাথরঘাটায় গিয়ে দেখা যায় ইলিশ বোঝাই ট্রলার একের পর এক ঘাটে ভিরছে। এসব ট্রলারে থাকা জেলেরা দ্রুত মাছ আড়তদারদের কাছে রেখে আবারো ফিরে যাচ্ছেন গভীর সমুদ্রে।

এফবি মা ট্রলারের মাঝি শহিদুল ইসলাম ফকির রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘নিষেধাজ্ঞা মেনে গভীর সাগরে মাছ শিকার করা বন্ধ রেখেছিলাম ৬৫ দিন। ২৩ জুলাই মধ্যরাতে ট্রলার নিয়ে দক্ষিণ-পশ্চিম বঙ্গোপসাগরের ফেয়ারওয়ে বয়া এলাকায় গিয়ে জাল ফেলি। শুরুতেই প্রচুর পরিমাণে ইলিশ ধরা পড়ে আমাদের জালে। তাই অতিরিক্ত তেল খরচ করে দ্রুত গতিতে ট্রলার নিয়ে মালিকের কাছে মাছ রাখতে এসেছি আমরা। মাছ নামানো শেষ হলেই আবারও চলে যাবো  সাগরে।‘

একই ট্রলারের জেলে বরুন শীল বলেন, ‘৬৫ দিন পর সাগরে গিয়ে প্রচুর পরিমাণে মাছ পেয়েছি। শ্রাবণ মাস, বৃষ্টি হচ্ছে, তাই ইলিশ পানির একদম উপরভাগে চলে এসেছে। তাই সব জেলেদের জালে মাছ ধরা পড়ছে।’

এফবি সাইফুল্লাহ ট্রলারের মাঝি সাদেক আলী বলেন, ‘নিষেধাজ্ঞার দিনগুলোতে অনেক কষ্ট করেছেন জেলেরা। এবার সেই  কষ্টের লাগব হয়েছে। আমরা প্রচুর মাছ পাচ্ছি।’

বাংলাদেশ মৎস্যজীবী ট্রলার মালিক সমিতির সভাপতি গোলাম মোস্তফা চৌধুরী বলেন, ‘যেসব জেলেরা সাগর মোহনায় মাছ শিকার করেন, তাদের মধ্যে প্রায় অর্ধশতাধিক ট্রলার ঘাটে ফিরেছে। সব ট্রলারই মাছ বোঝাই হয়ে ফিরেছে। যারা গভীর সমুদ্রে মাছ শিকার করতে গেছেন, তারা আরও ৪-৫ দিন পর ফিরবেন।’

বরগুনা জেলা মৎস্য কর্মকর্তা বিশ্বজিৎ কুমার দেব বলেন, ‘জেলেরা ইলিশসহ নানান ধরনের মাছ পাচ্ছেন সাগর মোহনায়। গভীর সাগরে যেসব জেলেরা মাছ শিকার করছেন, তারাও প্রচুর মাছ পাবেন। এসব সরকারের বৈজ্ঞানিক পরিক্ষার ফল। সরকারের নানা তৎপরতার কারণেই প্রচুর মাছ ধরা পড়ছে।’

দেশের সমুদ্র সীমায় মৎস্য সম্পদ বৃদ্ধির লক্ষে সরকার ২০১৯ সাল থেকে ৬৫ দিনের জন্য সাগরে মাছ ধরায় নিষেধাজ্ঞা জারি করে।

দয়া করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরো খবর
© All rights reserved © 2022 Janatarnissash
Theme Dwonload From